সততার সাথে - সততার পথে

ন্যান্সি, ট্রাম্পের সামনে কাগজ কুচি কুচি করে ছিঁড়ে ‘মুখের উপর জবাব’ দিলেন

মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নাকি ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন এবং মার্কিন কংগ্রেসের কাজে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছেন। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগকে আষাঢ়ে গল্প বলে উড়িয়ে দেন ট্রাম্প। ছয় সপ্তাহ আগে মার্কিন কংগ্রেসে ট্রাম্পকে ইমপিচমেন্টের প্রস্তাব সমর্থন করা হয়। হ্যান্ডশেক না করে হাত সরিয়ে নিলেন ট্রাম্প। রাগে তাঁর ভাষণের কপি ছিঁড়লেন স্পিকার।

এরপর টুইটারে স্পিকার সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি লেখেন, নার্ভাস ন্যান্সি, পাগল ন্যান্সি। এর মধ্যে ডেমোক্র্যাটরা অবশ্য ট্রাম্পের বিরুদ্ধে খুব একটা সুবিধা করে উঠতে পারেনি। রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের এই তু তু ম্যায় ম্যায় কংগ্রেসে অসৌজন্য পর্যন্ত গড়ায়।

মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষে প্রেসিডেন্টের বক্তৃতা করার সময় অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটে। মার্কিন কংগ্রেসে বক্তৃতা করার আগে নিয়ম মেনে বক্তৃতার একটি লিখিত কপি স্পিকারের হাতে তুলে দেন ট্রাম্প। সেই সময় তাঁকে অভিবাদন জানাতে উঠে দাঁড়ান ন্যান্সি। করমর্দন করতে হাত বাড়িয়ে দেন। কিন্তু তা দেখেও মুখ ঘুরিয়ে নেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ন্যান্সির হাতে কাগজের গোছা ধরিয়েই তাঁর দিকে পিছন ফিরে দাঁড়ান।

মিডিয়ার সামনে প্রেসিডেন্টের এমন আচরণে অস্বস্তিতে পড়েন ন্যান্সি। যদিও টানা আশি মিনিট চুপ করেই ট্রাম্পের বক্তৃতা শোনেন। কিন্তু বক্তৃতা শেষে রিপাবলিকানরা যখন হাততালি দিতে ব্যস্ত, তখন একে একে ট্রাম্পের দেওয়া কাগজের গোছা টেনে কুচি কুচি করে ছিঁড়ে ফেলেন ন্যান্সি। সমালোচনার ঝড়ের মাঝে ন্যান্সি বলেন, অন্য কিছুও করা যেত। তবে যথেষ্ট বিনয় দেখিয়েছেন তিনি। তবে, ট্রাম্পকে জবাব দেওয়ার জন্য এই কাজটা করারই ছিল। যদিও তিনি উল্লেখ করতে ভোলেননি, কাজ সফল করার জন্য ডেমোক্র্যাটদের বন্ধুত্বের হাত বাড়ানোই থাকবে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

Your email address will not be published.