সততার সাথে - সততার পথে

কংগ্রেসকে পাল্টা জবাব ফেসবুকের, ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে Delete হয়েছে ২.২৫ কোটি পোস্ট

ফেসবুক ‘পক্ষপাতমূলক’ আচরণ করছে ভারতে। কংগ্রেস পার্টি উপর ক্রমাগত যে বিদ্বেষ ছড়ানো হচ্ছে, তা নিয়ে ফেসবুক উদাসীন। এমন গুরুতর অভিযোগ নিয়ে মার্ক জুকারবার্গের সংস্থাকে চিঠি লেখে কংগ্রেস। তার প্রত্তুতের ফেসবুক জানিয়েছে, তাদের ভুল ধরানোর জন্য ধন্যবাদ। তবে কংগ্রেসের অভিযোগ উড়িয়ে ফেসবুকের দাবি, তারা কখনওই পক্ষপাতমূলক আচরণ করে না এমনকী ভারতের কোনও বিষয় নিয়েও নাক গলায় না ফেসবুক।

ফেসবুকের তরফে জানানো হয়েছে, হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে শুধুমাত্র চলতি বছরের এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত ২ কোটি ২৫ লক্ষ পোস্ট মুছে দেওয়া হয়েছে। ২০১৭ সালে শেষ ত্রৈমাসিকের মুছে ফেলা হয় এক কোটি ৬০ লক্ষ। অর্থাত্ হিংসা ছড়ানোর রুখতে ফেসবুক যে আরও তত্পর তা চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

কংগ্রেসের অভিযোগ ছিল, একটি বিদেশি প্রতিষ্ঠান কীভাবে দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলাতে পারে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্য়ম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এবং টাইম ম্যাগাজিনে প্রকাশিত ৩টি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ভারতের শাসকদলের কয়েক জন নেতা-মন্ত্রী ফেসবুকে হিংসা ছড়ানো সত্ত্বেও কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। বিষয়টি অবগত হওয়া সত্ত্বেও ব্যবসার কথা মাথায় রেখে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার পরিবর্তে চেপে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে।

ফেসবুকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পর ভারতীয় শাখার কর্তৃপক্ষকে তলব করেন সংসদের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান শশী থারুর। জানা গিয়েছে, ওই কমিটির কাছে হাজিরা দিয়ে ফেসবুকের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছেন সংস্থার ভারতের প্রধান অজিত মোহন। ওই বৈঠকে বিজেপি নেতা-মন্ত্রীদের সাহায্য করার অভিযোগ ফেসবুক উড়িয়ে দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

Your email address will not be published.